1. nannunews7@gmail.com : admin :
  2. enamul.kst70@gmail.com : Enamul Haque : Enamul Haque
  3. labonnohaq71@gmail.com : Labonno Haq : Labonno Haq
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

ডিভোর্স বউ নিয়ে টিকটক ভিডিও : দুপক্ষের সংঘর্ষে পল্লীবালা ও শিক্ষাপল্লী মঞ্চ ভাঙচুর

  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ২৪ মার্চ, ২০২১
  • ৭ বার

কুমারখালী প্রতিনিধি : ভালবেসে পালিয়ে বিয়ে করেছিলেন দুজন। ৬ মাস যেতে না যেতেই পারিবারিক কলহের জের ধরে ডিভোর্স হয় তাদের। কিন্তু ডিভোর্সের ৬ মাস পার হলেও ভালবাসার আবেগে ডিভোর্স প্রাপ্ত বউকে নিয়ে টিকটক বানিয়ে ফেসবুকে শেয়ার দেন স্বামী। এনিয়েই দুই পরিবারের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়ে উভয় পক্ষের অন্তত ৪ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাটি মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সন্ধায় কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার নন্দনালপুর ইউনিয়নের আলাউদ্দিন নগর বাজার এলাকায় ঘটেছে। এঘটনায় আলাউদ্দিন নগরের পল্লীবালা শপিং কমপ্লেক্স ও শিক্ষাপল্লী মঞ্চ রেল লাইনের পাথর দিয়ে ভাংচুর করে স্বামী পক্ষের আত্মীয়রা। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আহতরা হলেন বউয়ের চাচা মিলন ও নানা সাহাবুদ্দিন এবং অপর পক্ষের ও দুজনের আহও হবার খবর পাওয়া গেছে । আহতরা কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
আহতদের পরিবার ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার নন্দনালপুর ইউনিয়নের চকরঘুয়া গ্রামের রেলপাড়ার হিদায়ের দশম শ্রেনি পড়ুয়া মেয়ের সাথে একই ইউনিয়নের পুটিয়া রেলপাড়া এলাকার আব্দুল খালেকের দশম শ্রেনি পড়ুয়া ছেলে হাসান আলীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে পরিবারের ইচ্ছার বিরুদ্ধে পালিয়ে বিয়ে করেন তারা। পরিবর্তে দুই পরিবার তাদের বিয়ে মেনে নেন। কিন্তু বিয়ের ৬ মাসের মাথায় পারিবারিক কলহের জের ধরে পারিবারিকভাবে ডিভোর্স হয় তাদের। ডিভোর্সের ৬ মাস পরেও ডিভোর্স প্রাপ্ত বউকে নিয়ে নিয়মিত টিকটক তৈরি করে ফেসবুকে শেয়ার ও বিভিন্ন ছবি ফেসবুকে প্রচার করে আসছিল স্বামী হাসান আলী। বিষয়টি মেয়ের পরিবারের নজরে আসলে ছেলের পরিবারকে সতর্ক করা হয়। বারবার সতর্ক করার পরও হাসান আলী ডিভোর্স প্রাপ্ত বউকে নিয়ে টিকটক বানিয়ে ফেসবুকে শেয়ার করলে দুই পরিবারের সমর্থকদের (আত্মীয়) মাঝে মঙ্গলবার আলাউদ্দিন নগর বাজার এলাকায় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হন তারা। এসময় স্বামী হাসান আলীর আত্মীয়রা আলাউদ্দিন নগর পল্লীবালা শপিং কমপ্লেক্স ও শিক্ষা পল্লীমঞ্চে ভাংচুর চালায়। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের ৪ জন আহত হলে স্বজনরা উদ্ধার করে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
এমন ভাঙচুরের ঘটনায় পথচলতি প্রায় 10 জন গুরুতর আহত হয়েছেন বলেও জানা গেছে।
তবে আলাউদ্দিন নগর শিক্ষাপল্লি মঞ্চ এবং পল্লীবালা শপিং কমপ্লেক্স ভাংচুরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি মালিকপক্ষরা।
এবিষয়ে মেয়ের আহত চাচা মিলন বলেন, ভাতিজিকে ভালবেসে পালিয়ে বিয়ে করেছিল হাসান। কিন্তু ৬ মাসের মাথায় ডিভোর্স হয়ে যায় ওদের। বিয়ের পরেও হাসান ভাতিজিকে নিয়ে টিকটক বানিয়ে ফেসবুকে শেয়ার করে আসছিল। ফেসবুকে এগুলো দিতে নিষেধ করায় ওদের লোকজন পরিকল্পিতভাবে আমাদের উপর আক্রমণ চালায়। হাসানের বড় ভাই সাব্বির বলেন, হাসান আমার ছোট। আমার আগেই বিয়ে করায় ওর সাথে কথা বলিনা আমি। আজ বিকেলে শুনলাম বাবাকে মেয়ে পক্ষের লোকজন মারছে। খবর পেয়ে সেখানে গেলে ওরা আমাকে ও আমার ছোট ভাই হোসাইনকে মারপিট করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান বলেন, ফেসবুকে ডিভোর্স প্রাপ্ত বউকে নিয়ে টিকটক শেয়ার করায় দুই পরিবারের সমর্থকদের মাঝে সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। তিনি আরো বলেন, আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন, এখনও কোন লিখিত অভিযোগ পাইনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Deshtathya
Theme Design By : Rubel Ahammed Nannu : 01711011640