1. nannunews7@gmail.com : admin :
  2. enamul.kst70@gmail.com : Enamul Haque : Enamul Haque
  3. labonnohaq71@gmail.com : Labonno Haq : Labonno Haq
শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৯:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
র‌্যাবর অভিযানে ৬ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার হেফাজতের তান্ডবে বিএনপি’র মদদ ছিলো : কুষ্টিয়ায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে হানিফ কুমারখালীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের খামখেয়ালীপনায় অর্ধ শত বসত বাড়ি বালির নিচে শেষ হলো রিক্সা চালকদের ৫০ ঘন্টার প্রতিক্ষার প্রহর! বালিয়াকান্দিতে স্বাস্থ্য সুরক্ষায় মাস্ক বিতরণ কুষ্টিয়া কুমারখালীর ভরুয়াপাড়া মাঠ থেকে এক কৃষকের লাশ উদ্ধার কুষ্টিয়ার ১১ মাইল কাভার্ড ভ্যান ও ট্রাকের মুখোমুখী সংঘর্ষে আহত ২,ড্রাইভার অবস্থা আশংকা জনক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ, নিহত ৪ আজ ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস

কুষ্টিয়ার অনুমোদিত ইট ভাটা ৫০, চলছে

  • প্রকাশিত সময় : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৫৯ বার

বিশেষ প্রতিনিধি,দেশতথ্য :

দেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নে ইট একটি গুরুত্বপূর্ন উপাদান। কুষ্টিয়া জেলায় ১শত ৯১টি ইট ভাটা রয়েছে। এর মধ্যে জিগজ্যাক ইটভাটা ৬২টি, ড্রাম চিমনি ইটভাটা ৩০টি ও ১২০ফুট ফিক্সড চিমনি ইটভাটা ৯৯টি। পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র নিয়ে অনুমোদন লাভ করেছে  মাত্র ৫০টি ইট ভাটা। অবশিষ্ট ১শত ৪১ভাটার মধ্যে শতাধিক ইটভাটা হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। এতে সরকার বিপুল পরিমান রাজস্ব হারাচ্ছে। জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর হতে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। রিটের  সময়মত জবাব না দেয়া ও দীর্ঘসূত্রিতার কারনে বন্ধ আছে অনুমোদন।কয়লার বদলে পুড়ছে কাঠ।ঘাটে ঘাটে পয়সা গুনতে হচ্ছে ভাটা মালিকদের।ফলে কোন নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে অধিকাংশ ইটভাটা পরিচালিত হচ্ছে। ২০১৩সন এবং ২০১৯সনের ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন নিয়ন্ত্রণ ও সংশোধন আইনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও লোকালয় হতে ১কিঃ মিঃ দূরে ভাটা স্থাপনের বিধান রয়েছে। এই আইনে ইটভাটাতে কাঠপোড়ানো বন্ধ ,মান সম্মত কয়লা ব্যবহার ও কৃষি জমি ব্যবহার না করার কথা বলা হয়েছে। এ ছাড়াও মজা পুকুর, খাল, বিল, খাড়ি, দীঘি, নদী, হাওড়, বাওড়, চরাঞ্চল ও পতিত জায়গা হতে  মাটি সংগ্রহ করার কথা বলা আছে। পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড় পত্র ও জেলা প্রশাসন হতে লাইসেন্স গ্রহণ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কুষ্টিয়া সরকারী কলেজের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. হাসিবুশ শাহীদ বলেছেন, ইটভাটার চুল্লি নিচু হলে মানুষও পরিবেশের ব্যাপক ক্ষতি হয়। ধোঁয়ায় গাছ, ফলমূল ও ফসল নষ্ট হয়ে যায়। কয়লা থেকে ব্যাপক ভাবে কার্বন মনোক্সাইড নির্গত হওয়ায় মানুষ সর্দি, কাশি,শ্বাস কষ্ট সহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়। অনুসন্ধানে জানা গেছে, কুষ্টিয়া সদর উপজেলায় ৩৬,কুমারখালিতে ১৮,মিরপুরে ২৫,ভেড়ামারায় ৩০ ও দৌলতপুরে ২৬টি ড্রাম চিমনি ও ১২০ ফুট ফিক্সড চিমনি ইট ভাটা রয়েছে। এর মধ্যে একটি বড় অংশ ভাটা স্হাপন নীতিমালা অনুযায়ী অনুমোদন না পাওয়ায় হাইকোর্টের দারস্থ হয়েছে। কয়েকটি জিগজ্যাক ভাটার অনুমোদন প্রক্রিয়াধীন। এরা সবাই মহামান্য হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের,সংশ্লিষ্ট প্রশাসন ও রাজনীতিবিদদের ম্যানেজ করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে।ইট ভাটা স্হাপনের নীতিমালা না মানায় বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে কুষ্টিয়া অঞ্চলের পরিবেশ। কুষ্টিয়া পরিবেশ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আতাউর রহমান বলেছেন, কুষ্টিয়ায় অনুমোদিত ইটভাটা ৫০ আর শতাধিক ইটভাটা হাইকোটে রিট করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে । চলতি বছরে বিভিন্ন ইটভাটায় অনিয়মের কারণে পৃথক ৪টি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এতে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৩৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।এ বিষয়ে কুষ্টিয়া ইটভাটা মালিক সমিতির সভাপতি আক্তারুজ্জামান মিঠুর সাথে কয়েকবার মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি সময় নিয়েছেন। অবশেষে কৌশলে এড়িয়ে গেছেন।

দেশতথ্য//এল//

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Deshtathya
Theme Design By : Rubel Ahammed Nannu : 01711011640