1. nannunews7@gmail.com : admin :
  2. labonnohaq71@gmail.com : Labonno Haq : Labonno Haq
সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন

বাঘা যতীনের ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে মানববন্ধন

  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২৩ বার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া কুমারখালীতে ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের বিপ্লবী নেতা যতীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় (বাঘা যতীন)র আবক্ষ ভাস্কর্য ভেঙ্গে ফেলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানব বন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শানিবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া শহরের থানামাড়স্থ বকচত্বরে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ কুষ্টিয়া জেলার উদ্যোগের এই প্রতিবাদ মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন জেলা জাসদের সভাপতি হাজি গোলাম মহনিন। জাসদের এই কর্মসূচীতে অন্যান্য রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দও সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন। বক্তারা বলেন, “ইতিহাস ঐতিহ্য রক্ষায় ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধসহ মৌলবাদি সাম্প্রদায়িক শক্তির আস্ফালন রুখে দাঁড়ানো এখন সময়ের দাবি। কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের রেশ কাটতে না কাটতেই আবার বিপ্লবী নেতা বাঘা যতীনের আবক্ষ ভাস্কর্য ভাংচুরের ঘটনার মধ্যে দিয়ে রাষ্ট্র ক্ষমতার প্রভাব বলয়ে এবং প্রচ্ছন্ন চ্ছত্রছায়ায় ঘাপটি মেরে থাকা মহান মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত অশুভ শক্তি আবারও প্রমান করল তাদের আস্ফালনের দৌরাত্ম।

 

এসময় বক্তারা বলেন, দেশব্যাপী মহান মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত শক্তি সাম্প্রদায়িক মৌলবাদি রাজাকার আলবদর আলসামস বাহিনীর দোসররা আরও বেশী আস্ফালনে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। তারা স্বাধীনতার লাল পতাকাকে খামছে ধরেছে। দেশব্যাপী এরা মুর্তি ধ্বংসের ধুয়া তুলে আবহমানকালের বাঙালী শিল্প, সংস্কৃতির ঐতিহ্য ভাস্কর্য্য শিল্পকে গ্রাস করার পায়তারা করছে। দেশের ধর্মপ্রতিষ্ঠান মসজিদ মাদ্রাসায় আগত ধর্মপ্রান মানুষকে উস্কে দিয়ে সর্বশেষ মহান স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য্য ধবংস ও উচ্ছেদের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। তাই অবিলম্বে ধর্মের লেবাসধারী এসব সাম্প্রদায়িক মৌলবাদি জঙ্গী সংগঠনের ধর্মভিত্তিক রাজনীতির মূল উৎপাটনে আইন করে নিষিদ্ধ করাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ভাস্কর্য অপসারণের হুমকিদাতা, শিল্প-সংস্কৃতি, ইতিহাস-ঐতিহ্য, সভ্যতা, মুক্তিযুদ্ধ, সংবিধান, নারী বিদ্বেষী উস্কানীদাতা রাজনৈাতিক মোল্লাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা ছাড়া কোন বিকল্প নেই। এসময় নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, মসজিদে মসজিদে জুম্মার নামাজে খুৎবা পাঠে ভাস্কর্য অপসারণের ধর্মীয় অপব্যাখ্যা দিয়ে উস্কে দেয়া হয় সরল প্রান মুসুল্লিদের।

 

বক্তরা আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের পর ঘটনাস্থলে সুরক্ষিত পুলিশ বেষ্টনীর মধ্যে একদল সন্ত্রাসী প্রকাশ্যে গুলি বর্ষণ করে জনমনে চরম আতংক সৃষ্টি করে বীরদর্পে চলে যায় অথচ পুলিশ নিরব দর্শকের ভুমিকা পালন করার মধ্য দিয়ে শহরবাসীর জানমাল চরম নিরাপত্তাহীনতার মুখে পড়লেও অদ্যবধি ওই ঘটনার কোন সুরাহা বা কাউকে আইনের আওতায় আনতে পারেনি পুলিশ। যে কারণে পূনরায় একই ধরণের ভাস্কর্য ভাংচুরের স্পর্ধা দেখিয়েছে এসব দুর্বৃত্তরা। এসব অগনতান্ত্রিক সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে জড়িতদের গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন নেতৃবৃন্দ।

বক্তব্য রাখেন, জেলা জাসদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিল্লুর রহমান, আমিরুল ইসলাম মকলু, অসিত সিংহ রায়, এ্যড.জয়দেব বিশ^াস, আকতার হোসেন, ওয়ার্কার্স পাটির কুষ্টিয়ার জেলার সাধারণ সম্পাদক কমরেড হাফিজ সরকার, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব কনক চৌধুরী, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন কেন্দ্রীয় সদস্য কারশেদ আলম, যুবনেতা মাহবুব হাসান, ছাত্রনেতা আসিফ ইকবাল, মীর রিসান, পরিচালনায় জাসদ নেতা আবু তৈয়ব।

দেশতথ্য//এল//

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Deshtathya
Theme Design By : Rubel Ahammed Nannu : 01711011640