1. nannunews7@gmail.com : admin :
  2. enamul.kst70@gmail.com : Enamul Haque : Enamul Haque
  3. labonnohaq71@gmail.com : Labonno Haq : Labonno Haq
বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ০৬:৩৪ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়া জেলার সকল সংবাদ

  • প্রকাশিত সময় : বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪২ বার

ভেড়ামারায় শ্বাসরোধে গৃহবধু হত্যা, পুলিশের সুরৎহালে আত্মহত্যা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া ভেড়ামারায় পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে নববধু হত্যার ঘটনাটি কে আত্মহত্যা হত্যা বলে চালিয়ের দেয়ার অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে।
নিহতের পরিবার ও ঘটনাস্থলের একাধিক প্রত্যক্ষদর্শীর অভিযোগ শারিরীক নির্যাতন ও গলাটিপে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে গৃহবধু শাহিদা বেগম ভাবনা (৩০) কে। বিক্ষুব্ধ স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জড়িত অভিযোগে নিহতের শ্বাশুড়ী ঝরণা খাতুনকে আটক করে পুলিশের কাছে সৌপর্দ করেন বলে নিশ্চিত করেন স্থানীয় বাহাদুরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আসিকুর রহমান।

সংবাদ পেয়ে ভেড়ামারা থানা পুলিশের ৬৬নং বিট ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম সংগীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ এবং এলাকাবাসীর হাতে আটক নিহতের শ্বাশুড়ী ঝরণা খাতুনকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা থানায় সৌপর্দ করেন। কিন্তু লাশ উদ্ধারকালে প্রস্তুতকৃত সুরৎহাল রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে আত্মহত্যা। নিহতের গলায় চন্দ্রাকৃতির কালো দাগ ব্যাতীত সারা শরীর উলট-পালট করে দেখেও কোনরূপ ক্ষতচিহ্ন বা দাগ পাওয়া যায়নি।

নিহত শাহিদা বেগমের ভাই ঈশ^রদী উপজেলার পিয়ারপুর গ্রামের নজরুল ইসলাম আকালীর ছেলে আকরাম হোসেন বলেন, এটি আমার বোনের দ্বিতীয় বিয়ে। প্রথম স্বামী অন্যত্র আরেকটি বিয়ে করায় দীর্ঘদিন স্বামী পরিত্যাক্তা শাহিদা ঈশ^রদী ইপিজেডে একটি কারখানায় কাজ করত। সেখানেই কাজ করত ভেড়ামারা উপজেলার ঠাকুর দৌলতপুর গ্রামের মহিবুলের ছেলে সোহেল। কিছুদিন আগে করোনার কারণে সে বিদেশ থেকে ফিরে আসে। এরই মাঝে দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠে। এক পর্যায়ে শাহিদা বেগম ওরফে ভাবনা খাতুন এবং সোহেল নিজেরাই বিয়ে করেন। গত ১৫দিন পূর্বে সোহেল আমার বোনকে তার বাড়িতে নিয়ে আসে। এসময় সোহেলের মা ঝরণা খাতুনের প্রবল আপত্তি যে, আমাদের কথা না শুনে তুই নিজে থেকে বিয়ে করেছিস ভালো, কিন্তু বিদেশ যাওয়ার সময় যে ৪লাখ টাকা ঋনী হয়েছিস সেই টাকা তোর বউকে শোধ করতে বল। এই কথা বলে ৪লাখ টাকার দাবি করে এক সপ্তাহের মধ্যেই শাহিদার উপর নির্যাতন শুরু করে। বিষয়টি আমার বোন মোবাইল করে আমাদের জানিয়েছেন। এসব কল রেকর্ড আমার কাছে আছে। সেকারনে আমি জোড়ালো ভাবে বিশ^াস করি ওরা যৌতুক দাবির টাকা না পেয়েই আমার বোনের উপর নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করেছে।

নিহতের বড় ভাই টিটনের অভিযোগ, ‘তার বোনকে হত্যা করা হয়েছে। কারণ পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে মাটিতে শোয়ানো অবস্থায়, ঝুলন্ত অবস্থা পুলিশ দেখেনি। তাছাড়া আত্মহত্যাই যদি হবে তাহলে এলাকাবাসী ওর শ্বাশুড়ী ঝরনা খাতুনকে বেধে রেখে পুলিশে দেবে কেন ? আমরা সংবাদ পেয়ে ভেড়ামারা থানাতে গেলে পুলিশ আমাদের আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা দিতে চাপ দেয়। আমি তাতে রাজি হয়নি। কারণ আমার বোনের শরীরে বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের আঘাতে কালশিরা দাগ রয়েছে। অথচ সুরৎহাল রিপোর্টে পুলিশ কোন আঘাতের চিহ্নের কথা উল্লেখ করেনি। আমি এই হত্যাকান্ডের সঠিক তদন্তসহ নায্য বিচার চাই।
নাম প্রকাশ না করা শর্তে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের একজন ময়না তদন্ত সহকারী নিহত শাহিদা বেগমের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত জনিত কালশিরা দাগ ছিলো বলে প্রতিবেদককে নিশ্চিত করেছেন।

লাশের সুরৎহাল প্রস্তুতকারী পুলিশ কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক জাহ্ঙ্গাীর আলম বলেন, সাহিদা বেগম ভাবনার লাশ উদ্ধারকালে আমি যেভাবে দেখেছি, সেভাবেই উল্লেখ করেছি। অন্যেরা কে কি বল্লেন তাতে আমার কিছু যায় আসে না।

ভেড়ামারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ জালাল বলেন, গৃহবধু শাহিদা বেগমের মৃত্যুর ঘটনায় আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে দ:বি: ৩০৬ধারায় মামলা রেকর্ড হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে লাশের ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। এঘটনায় আত্মহত্যা প্ররোচনা অভিযোগে গ্রেফতাকৃত নিহতের শ্বাশুড়ী ঝরণা খাতুনকে আদালতে সৌপর্দ করা হয়েছে। তার স্বামীকেও গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

কুষ্টিয়ার সরকারের বেধেঁ দেয়া দামে আলু বিক্রি করছে না

মোমেছুর রহমান, কুষ্টিয়া:
কুষ্টিয়ার আলু ব্যবসায়ীরা সরকারের নির্ধারণ করা দামে আলু বিক্রি করছে না। এতে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ ও মধ্যবিত্ত পরিবার । সরকারের নির্ধারণ করে দেওয়া দরে আলু বিক্রি করবে না বলে ব্যবসায়ীরা কুষ্টিয়া পৌর বাজারের আড়তে আলু আনছেন না। কিছু আলু থাকলেও সেগুলোও সরকারের নির্ধারিত দামে বিক্রি করা হচ্ছে না। এতে খুচরা বিক্রেতা ও ক্রেতারা বিপাকে পড়েছেন ।

আজ বুধবার এখানকার খুচরা বাজারে কেজিপ্রতি আলু বিক্রি হয়েছে ৪০ থেকে ৪২ টাকা দরে । কাঁচা মরিচ, বেগুন, ফুলকপিসহ বিভিন্ন সবজিও ইচ্ছেমতো দামে বিক্রি করা হচ্ছে। এতে ক্রেতাদের মাথায় হাত পড়েছে ।

ইতিপূর্বে তিন পর্যায়ে আলুর দাম নির্ধারণ করে দেয় সরকার। কেজি প্রতি খুচরায় ৩০, পাইকারিতে ২৫ ও হিমাগারে ২৩ টাকা করে আলু বিক্রি করতে বলা হয়। ওই সময় সরকারের নির্ধারণ করা আলুর দর বাস্তবায়়ন করতে কুষ্টিয়া পৌর বাজারে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বাজার তদারকি করেন । তিনি সরকারনির্ধারিত দামে আলু বিক্রির কড়া হুঁশিয়ারি দেন। তারপরও সেটা বাস্তবায়ন হয়নি। পরবর্তীতে সরকার আবারও প্রতি কেজিতে ৫ টাকা বাড়িয়ে আলুর নতুন দর ৩৫ টাকা নির্ধারণ করেন। এটাও বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

আজ সকাল নয়টায় পৌর বাজারে গিয়ে আড়তদার, খুচরা বিক্রেতা ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা হয় । জানা গেল, প্রতিদিন এ বাজারে অন্তত ৩০ টন আলু কেনাবেচা হয় । সেখানে আজ মাত্র কয়েক বস্তা আলু রয়েছে। সেগুলো ৩৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয় ।

বাজারের বেশ কয়েকটি ভান্ডারে গিয়ে দেখা যায়, আড়তে কোনো আলু নেই । বাজারের এক আলু ব্যবসায়ী বলেন, হিমাগারে দাম বেশি থাকায় ব্যবসায়ীরা আলু আনছেন না । হিমাগারেই ৩২ থেকে ৩৩ টাকা কেজি দরে আলু বিক্রি হচ্ছে।

বর্তমান আড়তে ৩৫ টাকা দরে আলু বিক্রি হচ্ছে। খুচরা বিক্রেতারা সেই আলু ৪০ থেকে ৪৫ টাকা দরে বিক্রি করছেন ।

কয়েকজন খুচরা বিক্রেতা বলেন, অনেক আড়তদার বিক্রি করা আলুর মেমো দিতে রাজি হননি। এ জন্য খুচরা বিক্রেতারা অনেকে আলু কেনেননি । অনেকে জরিমানার ভয়ে আলু বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছেন ।

খুচরা বিক্রেতারা বলেন, আড়তে দাম কমাচ্ছে না । তাই আলু বিক্রি বন্ধ করে দেওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই ।

কুষ্টিয়ায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক বৃদ্ধের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে কুষ্টিয়া রাজবাড়ী সড়কের কুমারখালী বাসস্ট্যান্ডে।

নিহত বৃদ্ধ কুষ্টিয়ার কুমারখালীর নন্দলালপুর ইউনিয়নের পুরাতন চড়াইকোল গ্রামের মৃত আব্দুল্লাহর ছেলে হাতেম আলী (৬০)।

জানা যায়, পান ব্যবসায়ী হাতেম আলী গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টার সময় কুমারখালী বাসস্ট্যান্ড থেকে বাইসাইকেল যোগে যাবার সময় দ্রুতগামী ট্রাকে ধাক্কা লেগে রোডের উপর পরে গেলে মাথার উপর দিয়ে ট্রাকের চাকা উঠে গিয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মজিবুর রহমান জানান, আমরা ইতিমধ্যে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি এবং ঘাতক ট্রাক চিহ্নিত করে আটকের চেষ্টা চলছে।

কুষ্টিয়ায় ৭ জেলের জেল-জরিমানা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:

মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান ২০২০ এর ১৪ তম দিনে কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায় পদ্মায় অভিযানকালে ৭ জন জেলেকে আটক করা হয়।

এ সময় তিন হাজার মিটার কারেন্ট জাল এবং কিছু মা ইলিশ মাছ আটক করা হয়। মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তিনজনকে ১৫ দিন করে জেল এবং একজনকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন উপজেলা নির্বাহি অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শারমিন আক্তার। অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা খন্দকার সাহিদুর রহমান, হোসেনাবাদ ক্যাম্পের আইসি এসআই জাহাঙ্গীর আলম ও সঙ্গীয় ফোর্স এবং মৎস্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীগণ।

কুষ্টিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় তিন বছরের শিশুর মৃত্যু

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:

গত মঙ্গলবার বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে কুষ্টিয়া শহরের মিলপাড়ায় মিল লাইন গেট সড়কে এক মর্মাতিক সড়ক দুর্ঘটনায় তানভীর রহমান নামের এক তিন বছরের শিশু ব্যাটারি চালিত ইজিবাইকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনা স্থলেই মারাযায় ।

এলাকা সুত্রে জানাযায়, ঝিনাইদহ শৈলকূপা উপজেলার লক্ষীপুর গ্রামের মশিউর রহমানের একমাত্র পুত্র সন্তান তিন বছরের তানভীর রহমান ঘটনার দিন তার মা আসমা খাতুনের সাথে তাদের আত্মীয়র মৃত্যু সংবাদে মিলপাড়ায় আসে ।

সেখানে এই দুর্ঘটনার সৃষ্টি হয়।

এই মর্মানতিক দুর্ঘটনায়ার পর ওই পরিবারে শোকের মাতমের সৃষ্ট হয়।

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ৮ জেলের কারাদণ্ড

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি :

কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার শিলাইদহ, জগন্নাথপুর এবং চর সাদিপুর ইউনিয়নের তীরবর্তী পদ্মা নদীতে মা-ইলিশ রক্ষায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। রাত ১২ টা পর্যন্ত টানা ৫ ঘন্টা পরিচালিত এই মোবাইল কোর্টে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে অবৈধ কারেন্ট জাল দিয়ে ইলিশ মাছ ধরা অবস্থায় ৯ জনকে আটক করা হয়। আটককৃত ব্যক্তিদের কাছ থেকে ইলিশ মাছ, ১০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল এবং ১০টি নৌকা জব্দ করা হয়। তাদের মধ্যে ৮ জনের প্রত্যেককে ১ বছর ও ১ জনকে ২০ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। জব্দকৃত কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস , মাছ গরীবদের মাঝে বিতরণ এবং নৌকা শিলাইদহের ইউপি সদস্যের জিম্মায় দেয়া হয়েছে।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিবুল ইসলাম খান। এসময় সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান , উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আলী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাহমুদুল ইসলাম , কুমারখালী থানা পুলিশ, ইউএনও অফিস এবং মৎস্য অফিসের স্টাফ উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়ায় থানা পুলিশের অভিযানে ১৬ জন আটক

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার শেরপুর গ্রাম থেকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ১৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ ।

পিয়ারপুর ইউনিয়নের শেরপুর গ্রামের একটি বাড়িতে নাশকতার বৈঠক চলার গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে প্রথমে স্থানীয় ফাঁড়ির পুলিশ ও পরে থানা থেকে আরও ফোর্স গিয়ে ওই বাড়ি থেকে তাদের আটক করা হয় বলে জানা গেছে ।

তদন্তের স্বার্থে প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিস্তারিত জানানো সম্ভব না হলেও, ঘটনাস্থলে জামায়াত ইসলাম ও জঙ্গিবাদের বেশ কিছু আলামত পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে দৌলতপুর থানা পুলিশ।

এই বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে দৌলতপুর থানার ওসি জহুরুল আলম এবং ওসি (তদন্ত) শাহাদাত রাশেদ জানান, ঘটনার গভীর জানা প্রয়োজন এবং প্রত্যেককে ব্যাপক জিজ্ঞাসা করা হবে । তারপর বিস্তারিত তথ্য গণমাধ্যমকে জানানো সম্ভব হবে । আটকের পূর্বে দীর্ঘ সময় বাড়িটি ঘিরে রাখা হয়। আটক ব্যাক্তিদের পরিচয় এক্ষুনি প্রকাশযোগ্য না ।

দেশতথ্য//এল//

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2020 Deshtathya
Theme Design By : Rubel Ahammed Nannu : 01711011640